সংবাদ শিরোনাম:
বিডি ক্লিনের প্রধান সমন্বয়কের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এর সাবেক সহ সভাপতি মশিউর রহমান শরিফ নরসিংদী মডেল থানার নতুন ওসি বিপ্লব কুমার দত্ত চৌধুরী টাঙ্গাইল পৌর ভবন এখন করোনার হট স্পট সাহেদের ৫০ দিনের রিমান্ড আবেদন শাহিন স্কুলের কর্তৃপক্ষ তালা ঝুলিয়ে পালালেন দলীয় নেতা কর্মীরা মিথ্যার জাহাজ হিসেবে আখ্যায়িত করলেন কেন্দ্রীয় তাঁতী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদককে ক্লিন টাঙ্গাইলের উদ্যোগে চতুর্থবারের মত প্রতিবন্ধীদের মাঝে উপহারসামগ্রী বিতরণ মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে তাঁতী লীগের মন্তাজউদ্দীন ভূঁইয়ার কর্মসূচি ব্যারিষ্টার ছেলের পিতা টাঙ্গাইল পৌর প্যানেল মেয়র সাইফুজ্জামান সোহেল
করোনায় সিভিল সার্জনসহ প্রাণ গেলো যাদের

করোনায় সিভিল সার্জনসহ প্রাণ গেলো যাদের

করোনায় সিভিল সার্জনসহ প্রাণ গেলো যাদের
করোনায় সিভিল সার্জনসহ প্রাণ গেলো যাদের

করোনায় প্রাণ হারালেন ফেনীর সিভিল সার্জন

মারণ ভাইরাস করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ফেনীর সিভিল সার্জন ডা. সাজ্জাদ হোসেন। ঢাকার আসগর আলী হাসপাতালের আইসিইউতে মঙ্গলবার (০৭ জুলাই) বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটে তিনি মারা যান। বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) সভাপতি ডা. শাহেদুল ইসলাম কাউসার গণমাধ্যমকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে ১২ জুন নোয়াখালী আবদুল মালেক উকিল মেডিক্যাল কলেজ থেকে প্রাপ্ত ফলাফলে সিভিল সার্জন ডা. সাজ্জাদ হোসেনের করোনা পজিটিভ আসে। পরে গত ১৪ জুন করোনায় শ্বাসকষ্ট অনুভব হলে তাকে ফেনী জেনারেল হাসপাতালের ৪০ শয্যার হাই-ফ্লো অক্সিজেন ইউনিটে ভর্তি করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১৯ জুন) পরিবারের ইচ্ছায় ও আরো উচ্চ প্রবাহের অক্সিজেন সেবা চালু না হওয়ায় সিভিল সার্জনকে ঢাকায় পাঠানো হয়। পরে আজ মঙ্গলবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

সাবেক প্রধান শিক্ষকসহ প্রাণ গেল সাতজনের

নতুন করোনাভাইরাসের (কভিড-১৯) উপসর্গ নিয়ে ছয় জেলায় গত সোমবার ও গতকাল মঙ্গলবার সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন এক সাবেক প্রধান শিক্ষকসহ চারজনের মৃত্যু হয়। আমাদের আঞ্চলিক কার্যালয় ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর—

বরিশাল ও রাজাপুর (ঝালকাঠি) : শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন জানান, সোমবার রাতে মারা যান ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার ছোট কৈবর্তখালী গ্রামের বাসিন্দা সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক আবুল কায়সার সিকদার (৭২)। জ্বর, সর্দি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে সোমবার দুপুরে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন। তিনি বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগেও ভুগছিলেন। মৃত অন্য ব্যক্তিরা হলেন বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জের চরফাকাকাটা এলাকার মুরাদ আলী খানের ছেলে ওয়াহউল্লাহ খান (৬২), পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার চরদিরাস এলাকার ইয়াকুব আলীর ছেলে আলতাফ হোসেন (৬০) ও বরিশাল সদর উপজেলার আব্দুর রাজ্জাক (৬৫)।

আবুল কায়সারের মৃত্যুতে উপজেলা শিক্ষক সমিতিসহ বিভিন্ন সংগঠন শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছে।

আলতাফ হোসেন সোমবার রাত ১১টার পর জ্বর-সর্দি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। রাত ১টায় তিনি মারা যান। শুক্রবার দুপুরে করোনার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ওয়াহউল্লাহ খানকে। গতকাল ভোরে তাঁর মৃত্যু হয়। সোমবার রাত ১১টা ৪০ মিনিটে মারা যান আব্দুর রাজ্জাক। এ দিন রাত ৮টার দিকে তিনি ভর্তি হয়েছিলেন।

ঝিনাইদহ : জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল সকালে মৃত্যু হয় জেলার শৈলকুপা উপজেলার মিনগ্রামের রাকিবুল ইসলামের (৩৭)। তাঁর বাবা খেলাফত জোয়ার্দ্দার জানান, এক সপ্তাহ ধরে ঠাণ্ডা ও জ্বরে ভুগছিলেন রাকিবুল। সোমবার সন্ধ্যায় তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঝিনাইদহের সিভিল সার্জন সেলিনা বেগম জানান, মৃতের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

রাউজান (চট্টগ্রাম) : গতকাল ভোরে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে মারা যান রাউজানের এক নারী ছখিনা বেগম (৫৮)। তিনি উপজেলার বাগোয়ান ইউনিয়নের মাতব্বর টেক এলাকার ডিএবি আহমদ হোসেনের বাড়ির মৃত সিরাজুর রহমান তালুকদারের স্ত্রী। তাঁর ছেলে জাহাঙ্গীর সিরাজ তালুকদার বলেন, ছখিনা বেগম শ্বাসকষ্ট নিয়ে আইসিউতে ছয় দিন ধরে ছিলেন।

সরিষাবাড়ী : জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলায় শ্বাসকষ্ট, জ্বর নিয়ে সোমবার করোনা পরীক্ষার নমুনা দেওয়ার পর গতকাল সকালে ঠিকাদার আসাদুজ্জামান চানের (৫৫) মৃত্যু হয়েছে। পরিবার তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়। তিনি উপজেলার সাতপোয়া গ্রামের আজিজুর রহমানের ছেলে ও সরিষাবাড়ী থানা নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি।

জানা যায়, আসাদুজ্জামান চান শ্বাসকষ্ট, জ্বরসহ বিভিন্ন শারীরিক সমস্যা নিয়ে কিছুদিন ধরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার সাইফুর রহমান খান সোহানের অধীনে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। সোমবার সকালে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা পরীক্ষার জন্য তিনি নমুনা দিয়ে যান। আসাদুজ্জামানের ভাতিজা সরিষাবাড়ী নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মোখলেছুর রহমান মিশু কালের কণ্ঠকে জানান, তাঁর চাচার দীর্ঘদিন ধরে অ্যাজমা, ডায়াবেটিস, জ্বর ও উচ্চ রক্তচাপ ছিল।

করোনায় প্রাণ গেল আরো দুই চিকিৎসাযোদ্ধার

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো দুই চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। তাঁরা হলেন—ফেনীর সিভিল সার্জন ডা. সাজ্জাদ হোসেন এবং পল্লী কর্মসংস্থান ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. মো. ফয়জুল্লাহ। এ নিয়ে দেশে করোনায় মোট ৬৪ জন চিকিৎসক মারা গেলেন।

গতকাল মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে রাজধানীর আজগর আলী হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ডা. সাজ্জাদ হোসেন। তাঁর মৃত্যুর মধ্য দিয়ে দেশে প্রথম কোনো সিভিল সার্জনের মৃত্যু হলো করোনায়। বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) অফিস ব্যবস্থাপক মো. জামাল উদ্দিন কালের কণ্ঠকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

ফেনীর সিভিল সার্জন অফিস সূত্র জানায়, গত ১২ জুন ডা. সাজ্জাদ হোসেনের করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। ১৪ জুন শ্বাসকষ্ট দেখা দেওয়ায় তিনি ফেনী জেনারেল হাসপাতালের ৪০ শয্যার হাই ফ্লো অক্সিজেন ইউনিটে ভর্তি হন। ১৯ জুন তাঁকে ঢাকায় পাঠানো হয়।

এর আগে গতকাল সকাল ৮টার দিকে রাজধানীর গ্রিনলাইফ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ডা. মো. ফয়জুল্লাহ মারা যান বলে হাসপাতাল সূত্র জানিয়েছে। পিকেএসএফের আগে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল এবং ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন ও রিসার্চ ইনস্টিটিউটে কর্মরত ছিলেন। তিনি ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থী ছিলেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840