সংবাদ শিরোনাম:
টাঙ্গাইলে একইসাথে দুই করোনা যোদ্ধার জন্মদিন উদযাপন এমপি মমতা হেনা লাভলীর টাঙ্গাইলে বন্যার্তদের মাঝে ত্রান বিতরণ সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন, টাঙ্গাইল জেলা শাখার নতুন কমিটি এমপি হিরোর বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা লাগানোর অপচেষ্টার অভিযোগ টাঙ্গাইলে ছাত্রলীগ কর্তৃক বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী পালন মানিক শিকদারের ব্যবস্থাপনায় টাঙ্গাইলে জাতীয় শোক দিবস পালন টাঙ্গাইলের পৌর মেয়র জামিলুর রহমানে মিরনের ব্যবস্থাপনায় টাঙ্গাইলে শোক দিবস পালন প্রবাসে থেকেও থেমে নেই টাঙ্গাইলের মুজাহিদুল ইসলাম শিপন মেয়র লোকমানের আত্মস্বীকৃত খুনি এমপি সাহেবের প্রোগ্রামে সক্রিয় জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নিজেই প্রধান অতিথী, সভাপতিত্ব করবেন কে?
চরমোনাই পন্থীদের আত্মতৃপ্তি নয় চাই আত্মসমালোচনাও: নুর আহমদ সিদ্দিকী

চরমোনাই পন্থীদের আত্মতৃপ্তি নয় চাই আত্মসমালোচনাও: নুর আহমদ সিদ্দিকী

চরমোনাই পীর/ ইশা ছাত্র আন্দোলন
চরমোনাই পীর/ ইশা ছাত্র আন্দোলন

এটা বানান করে কাউকে বুঝানোর প্রয়োজন নেই যে দিন দিন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ উন্নতি করছে। রাজনৈতিক বিশ্লেষকগণ মনে করেন আদর্শিক দৃঢ়তা আর একলা চলো নীতির ফলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ স্বল্প সময়ে তৃণমূলে শক্ত আসন গেড়ে বসতে শুরু করেছে যা দলটিকে জন মানুষের কাছে প্রাসঙ্গিক করে তুলছে।
১৯৮৭ সালে প্রতিষ্ঠিত দলটি ক্ষমতার বাইরে থেকেও এতটা জনপ্রিয় হয়ে উঠার পেছনের কারণ কারো অজানা নয়। প্রতিষ্টাতা আমির মাওলানা সৈয়দ ফজলুল করিম পীর সাহেব চরমোনাই রহ ক্ষমতার মোহে জোট মজাজোটের সাথে যেমন আপোষ করেনি ঠিক বর্তমান আমিরও আদর্শ বিসর্জন দিয়ে নিছক ক্ষমতার মোহে কোন জোট মহাজোটে যায়নি। জোট মহাজোট থেকে সম্মানজনক আসনের অফার দেওয়া হলেও তাতে সাড়া দেয়নি ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ।
দল বড় হচ্ছে, বাড়ছে নেতা কর্মীর সংখ্যা। ২০১৯ সালে যখন পত্রিকার পাতায় উঠে আসে ইসলামী আন্দোলনের সফলতার গল্প তখন স্বাভাবিক ভাবেই ভাল লাগার কথা। রাজনীতিতে প্রভাবশালী হয়ে উঠছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ।
গত জুন মাসে সমকাল পত্রিকায় জেলা ভিক্তিক রিপোর্টে আওয়ামী লীগ বিএনপির পর সব চেয়ে প্রভাবশালী রাজনৈতিক দল হিসেবে আখ্যায়িত করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশকে। আমরা সে রির্পোট নিয়ে খুশি হয়েছি।
পত্রিকার রির্পোট শুধু ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কে ভালবেসে করেনি।সমকালের মত পত্রিকা ইসলামী আন্দোলন কে ভালবাসেনা বরং তাদের রির্পোট করা অনেকটা বাতিল শক্তিকে সতর্ক করে দেওয়া।
রাজনীতিতে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ শক্তিশালী হচ্ছে,প্রভাবশালী হচ্ছে এসব শিরোনামে আমি যতটা না খুশি হয়েছি এর চেয়ে বেশি উদ্বিগ্ন হয়েছি। পত্রিকায় ইসলামী আন্দোলন শক্তিশালী হয়ে উঠছে সেই শিরোনাম হওয়া মানে বস্তুবাদী, বাতিল শক্তিকে কে সতর্ক দেওয়া যে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কে দমানোর সময় এসেছে।
মিডিয়া চাইলে কাউকে আসমানে আবার কাউকে মাটিতে নিপতিত করতে পারে।মিডিয়া দিনকে রাত আর রাতকে দিন করতে পারে। ডাহা মিথ্যাকে শতভাগ সত্য বলে প্রচার করতে পারে। এটাই মিডিয়ার শক্তি। হেফাজতে ইসলাম কে আকাশে উঠিয়েছিল মিডিয়া এখন গুম করেছে মিডিয়া সুতরাং মিডিয়ায় ইসলামী আন্দোলনের প্রসংশা শুনে আমি যতটা না খুশি হই এর চেয়ে শতগুণ চিন্তিত হই।
মিডিয়ার শিরোনাম, প্রোগাম জনাকীর্ণ উপস্থিতি দেখে আত্মতৃপ্তিতে ভোগলে চলবেনা। চাই আত্মসমালোচনা,আত্মবিশ্লেষণ ও নিয়মতান্ত্রিক পর্যালোচনা।
মিডিয়া ইসলামী আন্দোলন নিয়ে আগ্রহী হয়ে উঠা মানেই ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কে দমানোর জন্য বিরোধী শক্তিকে সতর্ক করে দেওয়া। মিডিয়ার মিষ্টি কথায় আত্মতৃপ্তির ঢেঁকুর তুলে লাভ নেই। মনে রাখতে হবে স্বাধীনতা অর্জনের চেয়ে রক্ষা করা কঠিন।
ইসলামী আন্দোলন রাজনীতিতে শক্তিশালী হয়ে উঠছে সেটা অবাস্তব নয়। সেই শক্তি, প্রভাব ও জনপ্রিয়তা ঠিকিয়ে রাখার সামর্থ অর্জন করাও প্রয়োজন।জনপ্রিয়তা ধরে রাখার শক্তি অর্জন করা সময়ের দাবি। কোথায় দলের দুর্বলতা আছে তা খুঁজে বের করতে হবে।
দলীয় বিভেদ সৃষ্টি হওয়ার পূর্বেই সমাধানের কৌশল অবলম্বন করা, অন্তকোন্দল সৃষ্টি যাতে না হয় সেদিকে তীক্ষ্ণ দৃষ্টি রাখতে হবে। বস্তুবাদী শক্তির কাছে আমরা কতটা প্রাসঙ্গিক তার হিসেব কষার সময় এসেছে।গণবিপ্লবের জন্য আমরা কতটা প্রস্তুত তা চুলছেড়া বিশ্লেষণ আজ সময়ের দাবি।অনেক সম্ভাবনাময়ী রাজনৈতিক দল কৌশলগত কারণে আজ প্রাণহীন,মেরুদণ্ডহীন।
দলীয় কর্মীর সংখ্যা বৃদ্ধি আর জনপ্রিয়তার কথা ভেবে খুশি হয়ে হাতগুঠিয়ে বসে থাকলে কচ্ছপ আর খরগোশের দৌঁড় প্রতিয়োগিতার ন্যায় হবে। তৃণমূলের নেতা কর্মীদের যথাযথ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা, যুগোপযোগী কর্মসূচি প্রণয়ন, জনকল্যানমূলক কর্মকান্ড বৃদ্ধি করা প্রয়োজন।
যুগের চাহিদা অনুসারে কর্মসূচি পালন করা ও জনসম্পৃক্ততা বাড়ানো সময়ের দাবি।তৃণমূলে শক্ত অবস্থান সৃষ্টির পাশাপাশি প্রয়োজন নিজস্ব মিডিয়া। মিডিয়া কতটা প্রয়োজন তা কাউকে বুঝাতে হবে বলে মনে করছিনা। নিজস্ব মিডিয়া সৃষ্টি করা এবং আত্মসমালোচনার মাধ্যমে দলকে সুসংগঠিত করতে হবে।তাই আত্মতৃপ্তিতে সময় না কাটিয়ে আত্মসমালোচনার মাধ্যমে গণবিপ্লবের পথে এগুতে হবে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840