সংবাদ শিরোনাম:
দ্বিতীয়বারের মতো ঢাকার সেরা অফিসার ইনচার্জ ফারুক হোসেন ‘ভোট জালিয়াতি’ তদন্তের নির্দেশ চট্টগ্রামে গলায় ছুরি ধরে গৃহবধূকে গণধর্ষণ, ধর্ষকদের বাঁচাতে কাউন্সিলরপ্রার্থী বেলালের দৌড়ঝাঁপ নারী নির্যাতন মামলায় বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের বিবাহিত সভাপতি মাহবুব হোসেন কারাগারে দুই নবজাতকের লাশ নিয়ে হাইকোর্টে বাবা কনস্টেবলকে মারধর, শ্রমিকলীগ নেতার স্ত্রী কারাগারে অবক্ষয় থেকে তরুণ সমাজকে রক্ষা করতে চলচ্চিত্রের ব্যাপক ভূমিকা রয়েছে- তথ্যমন্ত্রী পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি 2020 কর কমিশনারের কার্যালয়ে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২০ ৯ দিনে করোনা জয়ী তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ
টাঙ্গাইলের মধুপুরে চেয়ারম্যান এর ছোট ভাই ইয়াবা সম্রাট সন্ত্রাসী সাখাওয়াত গ্রেফতার

টাঙ্গাইলের মধুপুরে চেয়ারম্যান এর ছোট ভাই ইয়াবা সম্রাট সন্ত্রাসী সাখাওয়াত গ্রেফতার

ইয়াবা সম্রাট সন্ত্রাসী সাখাওয়াত
ইয়াবা সম্রাট সন্ত্রাসী সাখাওয়াত

নিজস্ব প্রতিনিধি: ১৪ জুলাই গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে টাঙ্গালের মধুপুর উপজেলার কাজী হাসপাতালের সামনে থেকে ৩০পিছ ইয়াবাসহ মোঃ সাখাওয়াত হোসেন (৪১) নামে একজন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে মধুপুর উপজেলার দায়িত্বরত পুলিশ প্রশাসনের একটি চৌকস দল।
গ্রেফতারকৃত মোঃ সাখাওয়াত হোসেন টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর উপজেলার ধলপুর গ্রামের মৃত কাশেম আলীর ছেলে এবং সবগঠিত মহিষমারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাজী আব্দুল মোতালেব এর ছোট ভাই।

জানা যায়, সাখাওয়াত হোসেন ভুটিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের শরীরচর্চা বিষয়ক শিক্ষক। মানুষ গড়ার কারিগরের অন্তরালে দীর্ঘদিন যাবৎ ইয়াবা সেবন এবং ইয়াবা ব্যবসা করে আসছেন এ শাখাওয়াত। শিক্ষকতার মহান পেশার আড়ালে মানুষ গড়ার বদলে মহিষমারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাজী আব্দুল মোতালেব এর ছত্রছায়ায় থেকে বড় বড় ইয়াবার ডেলিভারী গুলো সাখাওয়াত নিজেই করেন এবং নানা রকম সন্ত্রাসী কার্যক্রমও করে থাকেন।

উল্লেখ্য, ৩ জুলাই মধুপুর উপজেলার গারোবাজার পুলিশ ফাঁড়ির দাবীতে ব্যবসায়ী ও এলাকাবাসীর মানববন্ধনের পরেই ক্ষিপ্ত হয়ে কাজী আঃ মোতালেব এর নির্দেশে এবং একাব্বর আলী চেয়ারম্যান এর ছেলে ফারুক এর সহযোগিতায় ৬জুলাই চেয়ারম্যান প্রার্থী মহি উদ্দিনের উপর পরিকল্পিতভাবে হামলা চালায় এবং ২টি মটর সাইকেল ভাঙচুরসহ আঃ করিম এর রড সিমেন্টের দোকান থেকে ২লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনার মুল হোতা এই গ্রেফতারকৃত শাখাওয়াত।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক ব্যক্তি জানান, সাখাওয়াত দীর্ঘদিন যাবৎ তার চেয়ারম্যান ভাই (কাজী আঃ মোতালেব)’র ছত্রছায়ায় থেকে মাদক ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। সাখাওয়াতকে রিমান্ডে আনলেই সকল তথ্য বেড়িয়ে আসবে। সেই সাথে কাজী আঃ মোতালেব এরও অবৈধ ক্ষমতাও হ্রাস পাবে।

মধুপুর থানা সূত্রে জানাযায়, ১৪/০৭/২০ইং তারিখ মধুপুর থানা এলাকায় মাদক দ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট বিক্রয় করার সময় মধুপুর থানাধীন, মধুপুর থানা মোড়ের দক্ষিন পাশ্বে কাজী হাসপাতালের সামনে হইতে আসামী মোঃ সাখাওয়াত হোসেন (৪১), পিতা- মৃত কাশেম আলী, মাতা- সুরতী বেগম, গ্রাম- ধলপুর, থানা-মধুপুর, জেলা-টাঙ্গাইল এর নিকট হইতে ৩০ (ত্রিশ) পিছ ইয়াবা ট্যাবলেট, যাহার ওজন ০৩ গ্রাম, মূল্য ৯,০০০/- টাকাসহ গ্রেফতার করা হয়। আসামীর বিরুদ্ধে মধুপুর থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা রুজু করিয়া বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

স্থানীয় এলাকাবাসী টাঙ্গাইল-১ (মধুপুর-ধনবাড়ী) আসনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং মাননীয় কৃষি মন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক এর কাছে দাবী জানিয়ে বলেন, সাখাওয়াতকে রিমান্ডে এনে তারকাছ থেকে তথ্য সংগ্রহ করে তার সকল মদতদাতা এবং তার সহযোগীদের আইনের আওতায় এনে মধুপুর এলাকা থেকে মাদক নিরমুলসহ এলাকার স্কুল কলেজ পড়ুয়া ছাত্র/ছাত্রীসহ যুব সমাজকে ইয়াবার ভয়াল গ্রাস থেকে মুক্ত করার ব্যবস্থা নেওয়া হোক।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840