সংবাদ শিরোনাম:
বিডি ক্লিনের প্রধান সমন্বয়কের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এর সাবেক সহ সভাপতি মশিউর রহমান শরিফ নরসিংদী মডেল থানার নতুন ওসি বিপ্লব কুমার দত্ত চৌধুরী টাঙ্গাইল পৌর ভবন এখন করোনার হট স্পট সাহেদের ৫০ দিনের রিমান্ড আবেদন শাহিন স্কুলের কর্তৃপক্ষ তালা ঝুলিয়ে পালালেন দলীয় নেতা কর্মীরা মিথ্যার জাহাজ হিসেবে আখ্যায়িত করলেন কেন্দ্রীয় তাঁতী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদককে ক্লিন টাঙ্গাইলের উদ্যোগে চতুর্থবারের মত প্রতিবন্ধীদের মাঝে উপহারসামগ্রী বিতরণ মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে তাঁতী লীগের মন্তাজউদ্দীন ভূঁইয়ার কর্মসূচি ব্যারিষ্টার ছেলের পিতা টাঙ্গাইল পৌর প্যানেল মেয়র সাইফুজ্জামান সোহেল
প্রমীলা ফুটবল দলের পাশে টাঙ্গাইলের মেয়র

প্রমীলা ফুটবল দলের পাশে টাঙ্গাইলের মেয়র

জামিলুর রহমান মিরন
জামিলুর রহমান মিরন

মোনালিসা ওইমেন্স স্পোর্টস একাডেমি, টাঙ্গাইল এর প্রমিলা ফুটবল দলের পাশে যখন কেউ নেই ঠিক তখন অনুদানের প্রশ্বস্ত হাত বাড়িয়ে দিলেন টাঙ্গাইল পৌর পিতা এবং টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব জামিলুর রহমান মিরন।

করোনাকালীন সময়ে সারা বিশ্বই যখন স্থবির হয়ে পরে ঠিক তখন বাংলাদেশের অন্যতম জেলা শহরের প্রমিলা ফুটবল টিমের প্র্যাকটিসের জন্য জায়গা কিংবা অনুদান সবই বন্ধ হয়ে যায়। পরিশ্রমি ক্রীড়া সংগঠক এবং শিক্ষিকা মুন্নি মুনালিসা নিজ উদ্যোগে নিজের উপার্জিত অর্থ দিয়ে সরকারি এম. এম আলী কলেজ মাঠে প্রমীলা ফুটবলারদের নীয়মিত অনুশীলন করাতে থাকেন। তিনি নিজেই প্রমীলা ফুটবলারদের যাবতীয় ব্যয় ভার অর্থাৎ থাকা-খাওয়াসহ আনুসঙ্গীক খরচ বহন করেন। জেলা ক্রীড়া সংস্থা সহযোগীতা না করে অনুশীলন কার্যক্রম বন্ধ রাখতে বলেন।

স্বপ্নবাজ মুন্নি মোনালিসা স্বপ্ন দেখেন প্রমীলা ফুটবলারদের নিয়ে। তিনি স্বপ্ন দেখেন এদের দিয়ে বিশ্ব জয়ের। তাই তিনি থেমে যাননি। তিনি একাই লড়ে যান। অনেক কষ্টে চালিয়ে নিতে থাকেন টিমকে।

টাঙ্গাইলের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ক্লিন টাঙ্গাইলের সাথে অনেক আগে থেকেই একাত্মতা প্রকাশ করে কাজ করে যাচ্ছেন মুন্নি মোনালিসা। তিনি ক্লিন টাঙ্গাইলের সমন্বয়ক জালাল উদ্দিন শাহিন চাকলাদারকে বিষয়টি অবহিত করেন। শাহিন চাকলাদার-ও একজন ফুটবলার ছিলেন তিনি জেলা ফুটবল দল সহ ঢাকার ক্লাবে খেলতেন।

শাহিন চাকলাদার বিষয়টি নিয়ে টাঙ্গাইলের মাটি ও মানুষের নেতা আলহাজ্ব জামিলুর রহমান মিরনকে অবহিত করেন। আলহাজ্ব জামিলুর রহমান মিরনকে সহযোগিতার বিষয়ে অনুরোধ করলে মেয়েদের জন্য খাদ্য সামগ্রী সরবরাহ করার পাশাপাশি প্রতি মাসে ঘর ভাড়া বাবদ ১০ হাজার টাকা প্রদানের ব্যবস্থা করে দেন।

আলহাজ্ব জামিলুর রহমান মিরন বলেন “এই সময়ে প্রমীলা ফুটবল দলের পাশে আমাদের দাঁড়ানো উচিত। তারা যদি অনুশীলন করার সুযোগ না পায়, তবে পিছিয়ে পরবে। খেলাধুলা অনুশীলনের বিষয়। কোন অবস্থাতেই অনুশীলন বন্ধ হবে না। সার্বিকভাবে সবসময় টাঙ্গাইল পৌরসভা প্রমীলা ফুটবলারদের উৎসাহীত করতে সহযোগিতা করবে।“

এছাড়াও টাঙ্গাইলের মেয়র পৌরসভা কেন্দ্রীক প্রমীলা ফুটবল টিম গঠনের বিষয়ে পরামর্শ করেন এবং সরকারী শিশু সদন বালিকাদের জন্য আলাদা প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে ফুটবল টিম গঠনের বিষয়েও আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

শাহিন চাকলাদার বলেন “আসলে আমার প্রত্যাশা এতো বেশি কিছু ছিল না। খাদ্য সামগ্রী বিষয়ে মেয়র মহোদয়ের মাধ্যমে প্রমীলা ফুটবলারদের সহযোগিতা করাই আমার মূল উদ্দেশ্য ছিল। আসলে মাননীয় মেয়র মহোদয় চিন্তা করেন একেবারেই আলাদাভাবে। তিনি অত্যান্ত দয়ালু মানসিকতার বিধায় শুধু খাবারের ব্যবস্থাই নয় তিনি আবাসন ব্যবস্থার যাবতীয় খরচ-ও বহন করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছেন।”

ক্রীড়া সংগঠক মুন্নি মোনালিসা বলেন “মাননীয় মেয়র মহোদয়ের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা। তিনি অত্যান্ত দয়ালু। তিনি বিষয়টি জানামাত্রই আমাদের পাশে এভাবে দাঁড়াবেন কখনো ভাবতেও পারিনি। আমাদের অনেক দুশ্চিন্তার বিষয় ছিল মেয়েদের আবাসন এবং খাবারের ব্যবস্থা ঠিক রেথে এভাবে অনুশীলন চালিয়ে যাওয়া। খুব কষ্ট হচ্ছিল সব ব্যবস্থাপনা করতে। মাননীয় মেয়র ফুটবলকে নিয়ে স্বপ্ন দেখেন। তিনি সকল ভালো কাজেই সবার পাশে দাঁড়ান। প্রমীলা ‍ফুটবল টিমের জন্য এই মুহুর্তে যা করলেন তা আজীবন আমাদের মনে থাকবে। আমরা প্রমীলা ফুটবল টিমকে দিয়ে ভাল কোন কিছু অর্জন করিয়ে মেয়র মহোদয়কে উপহার দিতে চাই।”

দীর্ঘদিন যাবত মুন্নি মোনালিসা তার শিক্ষকতা জীবনের পাশাপাশি তারই গড়া মোনালিসা ওইমেন্স স্পোটস একাডেমির মাধ্যমে টাঙ্গাইলে প্রমীলা ফুটবলার গড়ে আসছেন। টাঙ্গাইলের প্রমীলা ফুটবল দলের অধিকাংশ খেলোয়ার থাকে এই স্পোর্টস একাডেমির তৈরি।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840