সংবাদ শিরোনাম:
টাঙ্গাইলে একইসাথে দুই করোনা যোদ্ধার জন্মদিন উদযাপন এমপি মমতা হেনা লাভলীর টাঙ্গাইলে বন্যার্তদের মাঝে ত্রান বিতরণ সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন, টাঙ্গাইল জেলা শাখার নতুন কমিটি এমপি হিরোর বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা লাগানোর অপচেষ্টার অভিযোগ টাঙ্গাইলে ছাত্রলীগ কর্তৃক বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী পালন মানিক শিকদারের ব্যবস্থাপনায় টাঙ্গাইলে জাতীয় শোক দিবস পালন টাঙ্গাইলের পৌর মেয়র জামিলুর রহমানে মিরনের ব্যবস্থাপনায় টাঙ্গাইলে শোক দিবস পালন প্রবাসে থেকেও থেমে নেই টাঙ্গাইলের মুজাহিদুল ইসলাম শিপন মেয়র লোকমানের আত্মস্বীকৃত খুনি এমপি সাহেবের প্রোগ্রামে সক্রিয় জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নিজেই প্রধান অতিথী, সভাপতিত্ব করবেন কে?
প্রিয়াসাহার বক্তব্য ও অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ

প্রিয়াসাহার বক্তব্য ও অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ

doinik71

সাধারণত আমি অন্য ধর্মের মানুষের বিষয়ে নেগেটিভলি চিন্তাধারা রাখিনা। এদেশের সকল ধর্মের মানুষেরাই আমার আপনজন। সুখে দুঃখে তাদের সাথে থাকতেই আমি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। এদেশের সংখ্যালগুদের আমার কাছে কখনো সংখ্যালগু মনে হয়না। মনে হয় এরাই আমার আত্মার আত্মীয়। আমরা একই সৃষ্টির মানুষ, একই বিশ্বাসের মানুষ। বিশেষ করে এদেশীয় হিন্দুদের বিচ্ছিন্ন করে দেখার মতো কোন কারণও নেই। তাদের সাথে আমাদের বন্ধন একই পেটের সন্তানের মতো। সাহিত্য সংস্কৃতি সবকিছুতেই আমরা এক পরিবার। এজন্য তাদের প্রতি আমাদের বিশ্বাসটাও একটু বেশী, ভালোবাসার জায়গাটাও বিস্তর।

আপনারা জানেন কতো চড়াই উৎরাই পাড় করে আমরা একটি মানচিত্র, একটি পতাকা পেয়েছি। এরজন্য আপনারাও কম ত্যাগ স্বীকার করেননি। এদেশীয় মুসলিমদের মতো আপনারাও অনেক নির্যাতন, অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছেন। এতো রক্ত ঝরানোর একটাই কারণ এটা আপনাদের দেশ। আমি বিশ্বাস করি এদেশের মুসলমানেরা যেমন পাকিস্তানকে কোনদিন নিজের দেশ বলে ভাবতে পারেনা, অনুরূপ আপনারাও কখনো ভারতকে নিজের দেশ ভাবেননা। যে মাটির সাথে মিশে আছে আমার, আপনার অস্তিত্ব। সে মাটিকে কী কখনো অস্বীকার করা যায়?

আজকে মনে অনেক কষ্ট নিয়ে কথাগুলো বলতে হচ্ছে। যে হিন্দুদের উপর আমাদর অগাধ বিশ্বাস। আজ কতিপয় এদেশীয় হিন্দুরা একজন মিথ্যুক মহিলার কথাগুলোকে সমর্থন দিচ্ছেন। কেন সমর্থন দিচ্ছেন? একবার হিসেব করে বলুন বাংলাদেশে সংখ্যালগুর সংখ্যা কতো? আর আপনাদের পরিবারের কতোজন নির্যাতিত বা গুম হয়ে আছেন? মিথ্যা বলবেন, মিথ্যাকে সাপোর্ট দিবেন এটা আমরা স্বাভাবিকভাবে মেনে নেব ভাবলেন কী করে? আপনাদের লজ্জা হওয়া উচিত।

প্রিয়া সাহার কথাটাকে সমর্থন করছেন? আসলে আপনারা কী চান বলেন তো? বাংলাদেশে ৮% সংখ্যালগু ৩০ % সুযোগসুবিধা ভোগ করছে, আর আপনাদের পেয়ারের দেশ ভারতে ৩০% সংখ্যালগু ২% সুযোগসুবিধা ভোগ করছে। আপনার কী এটাই মনে হয় পৃথিবী জুড়ে মুসলমানের চেয়ে হিন্দুরা বেশী নির্যাতিত? ভুল ধারণা আপনার, হিসেব করে দেখুন পাশের দেশ ভারতেই মুসলমানেরা কতোটা নির্যাতিত।

আচ্ছা বলুনতো এ পর্যন্ত আপনাদের কয়জনকে জোর করে মুসলমান হতে বাধ্য করেছে? অথচ ভারতে হচ্ছে। বলুনতো আপনাকে কোথায়, কবে, কিভাবে আল্লাহ আকবার বলতে বাধ্য করছে? অথচ ভারতে জয় শ্রীরাম বলতে বাধ্য করছে। এবার বলুন আপনাকে কখনো কী কোন মুসলমান কচ্ছপ, শুওর বিক্রি বা খেতে মানা করেছে বা কাউকে হত্যা করা হয়েছে? অথচ ভারতে হচ্ছে। এবংকি হত্যাও করা হয়েছে।

আমি বলছিনা সংখ্যালগুরা একদম অত্যাচারিত নন তা নয়। কিছু কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা আছে। কিছু হিংস্রতার ঘটনাও আছে। তবে বর্তমানে অনেকটা কমে এসেছে। ভারতে কি হচ্ছে না হচ্ছে সে বিষয়ে আমার মাথাব্যথা একদম কম। কারণ সেদেশের মানুষ একদিন ঠিকই তাদের ভুল বুঝতে পারবে। কারণ ভারতে মুসলমানের অবদান হিন্দুদের থেকে কোন অংশে কম নয়।

আমার ভাবতে অবাক লাগে একজন মিথ্যাবাদীর কথাকে কিভাবে সমর্থন করছে এদেশের কিছু হিন্দু কুলাঙ্গার। এদের জন্য এদেশে সবচেয়ে ভালো হবে জামাতে ইসলামির সরকার। প্রতিদিন একজন একজন করে ভারত পাঠিয়ে না দিলেও, পাছায় ঠিকই লাত্থি খেতে হতো। সুখে থাকতে ভূতে কিলায়!

তবে এতো দ্রুত আপনাদের উপর থেকে বিশ্বাস হারাতে চাইনা। কারণ এ বিশ্বাস একদিন, একমাস, একবছর বা একযুগের নয়। সহস্র বছর ধরে যে বিশ্বাস আস্থা তৈরি হয়েছে তা একটি মিথ্যাবাদী, ভন্ড মহিলার কথায় শেষ হয়ে যেতে পারেনা, যাবেনা।

লাবু সরকার 
১৯ জুলাই ২০১৯

লেখক পরিচিতি:

লেখক একজন জনপ্রিয় কবি। তার লেখা নিয়মিত প্রকাশিত হচ্ছে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় এছাড়াও তিনি বিভিন্ন ব্লগে লেখালেখি করেন। লেখকের জন্ম টাঙ্গাইলে। অত্যন্ত মেধাবী এই তরুণ লেখকের লেখায় সবসময় সাম্প্রতিক চিন্তাভাবনা ফুটে উঠে। তিনি নিজেকে একজন স্পষ্টবাদি  লেখক হিসেবে পরিচয় দিতে গর্ববোধ করেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840