সংবাদ শিরোনাম:
দ্বিতীয়বারের মতো ঢাকার সেরা অফিসার ইনচার্জ ফারুক হোসেন ‘ভোট জালিয়াতি’ তদন্তের নির্দেশ চট্টগ্রামে গলায় ছুরি ধরে গৃহবধূকে গণধর্ষণ, ধর্ষকদের বাঁচাতে কাউন্সিলরপ্রার্থী বেলালের দৌড়ঝাঁপ নারী নির্যাতন মামলায় বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের বিবাহিত সভাপতি মাহবুব হোসেন কারাগারে দুই নবজাতকের লাশ নিয়ে হাইকোর্টে বাবা কনস্টেবলকে মারধর, শ্রমিকলীগ নেতার স্ত্রী কারাগারে অবক্ষয় থেকে তরুণ সমাজকে রক্ষা করতে চলচ্চিত্রের ব্যাপক ভূমিকা রয়েছে- তথ্যমন্ত্রী পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি 2020 কর কমিশনারের কার্যালয়ে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২০ ৯ দিনে করোনা জয়ী তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ
বাবার কাছে সীতাকুণ্ডে মেয়ে ধর্ষিত

বাবার কাছে সীতাকুণ্ডে মেয়ে ধর্ষিত

doinik71.com
doinik71

কাক কিন্তু কাকের গোশত খায়না, গরুও তার দুধ খায়না আর মানুষ এতো নিকৃষ্ট জীব যে নিজেই জন্ম দেওয়া রক্ত মাংসকে চিবিয়ে খায়। সমাজটা যেন কিছু পুরুষের জন্য অনিরাপত্তার চাঁদরে ঢেকে গেছে।

বন্যরা মানুষ হয়েছে পোষ মানে আর কিছু পুরুষ নামধারি হয়েছে পশু এদের সমাজে না রেখে জঙ্গলে রেখে বনের পশুর খাদ্যের যোগান দিলেই বোধহয় তাতে পরিবেশ ভারসাম্য টিকে থাকবে।

সীতাকুণ্ডের ফৌজদারহাটে জলিল গেইট এলাকায় নিজ শিশু কন্যাকে ধর্ষণ করলো তার জন্মদাতা পিতা। কন্যার বয়স মাত্র ১০ বছর। মেয়েটি চউক সলিমপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। জানা গেছে উক্ত বিদ্যালয়ে সে সবে মাত্র চতুর্থ শ্রেণীতে পড়ে।

উক্ত ধর্ষন ঘটনায় অভিযুক্ত লম্পট বাবাকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশ সোপর্দ করেছে জলিল গেইট এলাকাবাসী। অভিযুক্ত হিংস্র লোকটির নাম সুমন। যার বয়স চল্লিশ মামলায় উল্লেখ আছে। সুমন কুমিল্লা জেলার চান্দিনা উপজেলার চুরিগোলা মুন্সি বাড়ীর নজরুল মুন্সির ছেলে। পেশায় সে কাভার্ড ভ্যান একজন সহকারী। জানা গেছে সে দীর্ঘদিন যাবত ভাড়া বাসায় থাকতো।

গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার সময় উপজেলার ফৌজদারহাট জলিল গেইটস্থ এলাকায় বালি চৌধুরীর ভাড়া ঘরে এই নির্মম ঘটনা ঘটে। ধর্ষিতা শিশুটিকে গুরতর আহতবস্থায় সীতাকুণ্ড স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

ধর্ষিতার খালা জানান, প্রায় ১৪ বছর আগে আমার বোনের সাথে সুমন বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। আমার বোনের ঘরে ২টি কন্যা সন্তান রয়েছে তার মধ্যে এই মেয়েটি বড়। এছাড়াও সুমন এর মাঝে আরো ৩টি বিয়ে করেছে। দীর্ঘ দিন থেকেই সে আমার বোনকে বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন করে আসছিল। আমার বোন মানুষের বাড়ীতে কাজ করে দুই মেয়েকে নিয়ে সংসার চালায়।

বিগত ১ বছর ধরে সুমন অত্যন্ত্য চতুরতার সাথে আমার বোনের মেয়ে কে মানে তার সন্তানকে শারিরীক নির্যাতন করে আসছে।

যখন আমার বোন মানুষের বাড়ীতে কাজ করতে যায়। তখন আমার বোনের জামাই সুমন বিভিন্ন ভয়-ভীতি দেখিয়ে নিজের মেয়েকেই যৌন নির্যাতন করতো এবং কাউকে না বলার জন্য বিভিন্ন ভয়-ভীতি দেখাতো। সে বলতো ধর্ষণের কথা যদি কাউকে বলে তাহলে জানে মেরে ফেলবে।

এরকমভাবে কয়েকদিন পর পর একই ঘটনা ঘটতে থাকলে অসহ্য হয়ে মেয়েটা আমার কাছে আসে এবং আমাকে সব খুলে বলে। বিষয়টি আমি আমার প্রতিবেশীদেরকে সাথে সাথে জানাই এবং পরামর্শ নিতে থাকি।

আস্তে আস্তে পুরো ঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হয়ে গেলে এলাকাবাসী সুমন (ধর্ষক) কে আটক করে গণপিটুনি দেয়। এলাকাবাসী এই ঘটনা শুনে আসলে সহ্য করতে পারছিল না। একজন বাবা কি করে তার নিজের ঐরসজাত সন্তানকে এভাবে বারবার ধর্ষণ করতে পারে!

সচেতন এলাকাবাসী পুলিশ কে খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে সুমন কে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সীতাকুণ্ড মডেল থানার এসআই মজিব।

তিনি বলেছেন মামলা হয়েছে। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। তাকে উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করতে পুলিশ সহযোগিতা করবে।

এলাকার জনপ্রতিনিধিদের সাথে যোগাযোগ করলে তারা জানায় জনরোষের মধ্য থেকে সুমনকে উদ্ধার করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। মেয়েটি ও তার মা যাতে স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারে সেই বিষয়ে এলাকাবাসী প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করবে তারপর-ও এই ছোট্টমেয়েটাকে সারাজীবন তার বাবার দেয়া কলঙ্কের বোঝা বয়ে বেড়াতে হবে। আর কোন বাবা যেমন এমন না হয়। সমুদয় বাবাদের যেন কাঠগড়ায় এসে দাঁড় করিয়েছেন এই একজন ধর্ষক মানুষরুপী অমানুষ সুমন। নিন্দার ঝড় বয়ে যাচ্ছে প্রতিটি মানুষের মুখে ও মনে।

প্রাথমিকভাবে জানা যায় ঘটনাটি পুরোপুরি সত্য। এলাকার লোকজন চায় সুমনের কঠিন বিচার হোক। এই থেকে যেন সমুদয় ধর্ষকেরা শিক্ষা নিতে পারে। আর কেউ এমন জঘন্য কাজ করার সাহোস না পায়।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840