সংবাদ শিরোনাম:
দ্বিতীয়বারের মতো ঢাকার সেরা অফিসার ইনচার্জ ফারুক হোসেন ‘ভোট জালিয়াতি’ তদন্তের নির্দেশ চট্টগ্রামে গলায় ছুরি ধরে গৃহবধূকে গণধর্ষণ, ধর্ষকদের বাঁচাতে কাউন্সিলরপ্রার্থী বেলালের দৌড়ঝাঁপ নারী নির্যাতন মামলায় বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের বিবাহিত সভাপতি মাহবুব হোসেন কারাগারে দুই নবজাতকের লাশ নিয়ে হাইকোর্টে বাবা কনস্টেবলকে মারধর, শ্রমিকলীগ নেতার স্ত্রী কারাগারে অবক্ষয় থেকে তরুণ সমাজকে রক্ষা করতে চলচ্চিত্রের ব্যাপক ভূমিকা রয়েছে- তথ্যমন্ত্রী পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি 2020 কর কমিশনারের কার্যালয়ে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২০ ৯ দিনে করোনা জয়ী তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ
বিয়েতে গিয়ে ৯ জনের মধ্যে করোনা সংক্রমিত করলেন এক নারী, ভারতে ১০ জনকে দিলেন একজন

বিয়েতে গিয়ে ৯ জনের মধ্যে করোনা সংক্রমিত করলেন এক নারী, ভারতে ১০ জনকে দিলেন একজন

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ
করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ

বিয়েতে গিয়ে ৯ জনকে করোনাভাইরাস দিলেন এক নারী। এই নিয়ে মিডিয়াতে তোলপার লেগে গেছে।

করোনার সময়ে ভালো নেই পাকিস্তান। দেশটিতে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। শেষ পাওয়া তথ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৭২০। বিশ্বজুড়ে মহামারি নভেল করোনাভাইরাসে পাকিস্তানে এরই মধ্যে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে পাকিস্তানের করাচিতে এক বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়ে ৯ জন মানুষকে করোনায় আক্রান্ত করলেন এক নারী। পাকিস্তানের সংবাদ মাধ্যমের আজকের এটি একটি শীর্ষ সংবাদ।

দেশটির স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, এক পরিবারের ৯ জন সদস্য করাচির একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যান। সেই বিয়ের অনুষ্ঠানে একজন নারী করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। পরে তার কাছে থেকেই ওই পরিবারের সবাই করোনায় আক্রান্ত হন। ওই নারী সৌদি আরব থেকে সম্প্রতি পাকিস্তানে ফেরেন।

বিয়ের অনুষ্ঠানে যাওয়ার পরই পরিবারের ওই ৯ সদস্যের মধ্যে করোনার লক্ষণ দেখা দিতে শুরু করে। পরে তাদের হাসপাতালে নিয়ে করোনার পরীক্ষা করা হয়। সেখানেই ৯ জনের শরীরে ধরা পরে করোনার উপস্থিতি। তাদেরকে হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। আর ওই নারীর পরিবারের অন্যান্য সদস্যদেরও কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর স্বাস্থ্য বিষয়ক পরামর্শদাতা জাফর মির্জা জানিয়েছেন, পাকিস্তানের চিকিৎসকরা চীনের চিকিৎসকদের থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। করোনা রুখতে তিনি খুবই আশাবাদী। যদি সামাজিক দূরত্বের নিয়ম মেনে চলা যায় তাহলে তারা মহামারিটি নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হবেন। তারা সতর্কতা অবলম্বনে কোন প্রকার কমতি রাখেন নি।

দু’জনকে ভাইরাস দিলেন বিদেশফেরত, সম্ভবত ৮ কর্মীকেও!

চরম দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় দিয়ে নিজের পরিবারের দুইজন ও অফিসের ৮ কর্মীকে আক্রান্ত করেছেন ভারতের মধ্যপ্রদেশের এক যুবক। এ ঘটনায় শুক্রবার মধ্যপ্রদেশের জবলপুর জেলায় তার নামে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। সম্প্রতি তিনি বিদেশ থেকে ফিরেছেন। তাকে কোয়ারেন্টিনে থাকার কথা থাকলেও তিনি সেটা মানেননি। পরবর্তীতে পরীক্ষায় তিনি করোনা পজেটিভ প্রমাণিত হন।

তার পরিবারের আরও দুই সদস্য করোনা পজেটিভ হয়েছেন এবং তার অফিসের ৮ সহকর্মী করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন বলে সন্দেহ করা হরা হচ্ছে। তাদের মাঝেও করোনার লক্ষণ দেখা যাচ্ছে । এই সহকর্মীরা সবাই তার সঙ্গে হাত মিলিয়েছিল বলে জবলপুরের একজন সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

গত ১৬ মার্চ ওই ব্যক্তি দুবাই থেকে দেশে ফিরেছেন। বিমানবন্দরে স্ত্রিনিংয়ে তার করোনা ধরা পড়েনি। তবে তাকে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল বলে জানিয়েছেন ডিস্ট্রিক্ট কালেক্টর ভারত জাদব। বিদেশফেরত সকল যাত্রী এবং যারা সাম্প্রতিক সময়ে বিদেশ ভ্রমণ করেছেন সকলের জন্য এটা বাধ্যতামূলক বলে জানিয়েছেন ডিস্ট্রিক্ট কালেক্টর।

শুক্রবার মধ্যপ্রদেশে প্রথম করোনা রোগী ধরা পড়ে। সেখানে জবলপুর শহরেরর চারজন করোনা পজেটিভ সনাক্ত হন। তাদের মধ্যে এই ব্যক্তি এবং তার পরিবারের দুই সদস্যও রয়েছেন। এছাড়া একটা ম্যানস শপে কাজ করে এমন ২২ জনের মাঝেও করোনার লক্ষণ দেখা দেওয়ায় তাদেরও পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। যদিও তাদের পরীক্ষার রিপোর্ট এখনও হাতে আসেনি।

যাদব বলেন, এই ব্যক্তির বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি আইপিসি ধারা ১৮৮ (সরকারী আইন অমান্য করা) এবং ২৬৯ (রোগের সংক্রমণের ছড়ানো) এর অধীনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

যারা তার সংস্পর্শে এসেছিলেন তাদের সকলকে প্রশাসন খুঁজে বের করেছে বলে জানিয়েছেন তিনি। এছাড়া ভাইরাসের লক্ষণযুক্ত আট কর্মচারীকে জেলা হাসপাতালে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

এদিকে জেলা কর্তৃপক্ষ, নগরীর সমস্ত বাজার বন্ধ রাখার এবং প্রয়োজনীয় পণ্য সরবরাহের সাথে জড়িত ব্যতীত বাস ও পরিবহন পরিষেবা বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে।

সারাবিশ্ব জুড়েই যেখানে করোনার আতঙ্কে স্তিমিত সেখানে প্রবাসীদের এমন কার্যকলাপে রীতিমত স্তব্ধ সবাই।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840