সংবাদ শিরোনাম:
টাঙ্গাইলে একইসাথে দুই করোনা যোদ্ধার জন্মদিন উদযাপন এমপি মমতা হেনা লাভলীর টাঙ্গাইলে বন্যার্তদের মাঝে ত্রান বিতরণ সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন, টাঙ্গাইল জেলা শাখার নতুন কমিটি এমপি হিরোর বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা লাগানোর অপচেষ্টার অভিযোগ টাঙ্গাইলে ছাত্রলীগ কর্তৃক বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী পালন মানিক শিকদারের ব্যবস্থাপনায় টাঙ্গাইলে জাতীয় শোক দিবস পালন টাঙ্গাইলের পৌর মেয়র জামিলুর রহমানে মিরনের ব্যবস্থাপনায় টাঙ্গাইলে শোক দিবস পালন প্রবাসে থেকেও থেমে নেই টাঙ্গাইলের মুজাহিদুল ইসলাম শিপন মেয়র লোকমানের আত্মস্বীকৃত খুনি এমপি সাহেবের প্রোগ্রামে সক্রিয় জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নিজেই প্রধান অতিথী, সভাপতিত্ব করবেন কে?
ব্যাংক ঋণের সুদ হার কমাতে সাত সদস্যের কমিটি গঠন

ব্যাংক ঋণের সুদ হার কমাতে সাত সদস্যের কমিটি গঠন

সুদ হার কমাতে ৭ সদস্যের কমিটি
সুদ হার কমাতে ৭ সদস্যের কমিটি

স্টাফ রিপোর্টার: সুদহারে সিঙ্গেল ডিজিট জানুয়ারিতে (২০২০) কার্যকর করা হবে বলে জানান অর্থমন্ত্রী। অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, আমাদের অন্যতম চ্যালেঞ্জ ননপারফর্মিং লোন (এনপিএল-ঋণখেলাপী)। আমি বলেছিলাম ঋণখেলাপী বাড়বে না, বরং সামনে ধীরে ধীরে এর হার কমবে। কিন্তু আপনারা বলছেন এনপিএল বাড়ছে। এনপিএল বাড়ার মূল কারণ সুদের হার। বাংলাদেশের মতো এত বেশি সুদ বিশ্বের আর কোথাও নেই। তবে ব্যাংকের এই ঋণের সুদহার এক অঙ্কে নামিয়ে আনতে বাংলাদেশ ব্যাংক সাত সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে দেবে। কমিটি এ বিষয়ে পর্যালোচনা করে আগামী সাতদিন পর প্রতিবেদন দাখিল করবে। সেই প্রতিবেদন অনুযায়ী সরকার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে।

গতকাল (রবিবার) পরিকল্পনা কমিশনের এনইসি সম্মেলন কক্ষে দেশের সব সরকারী ও বেসরকারী ব্যাংকের চেয়ারম্যান এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালকদের (এমডি) সঙ্গে বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারী শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির এবং অর্থ মন্ত্রণালয়ের ব্যাংক ও আর্থিক বিভাগের সিনিয়র সচিব আসাদুল ইসলাম-ও উপস্থিত ছিলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, খেলাপী ঋণ বাড়ছে এটা সত্য। সুদের হার বাড়লে খেলাপী ঋণ বাড়বেই। ১৪ থেকে ১৫ শতাংশ সুদহার হলে এটা দিয়ে ঋণ গ্রহীতারা কুলাতে পারেন না সুতরাং, সুদহার নয় শতাংশ হলে খেলাপী ঋণ বাড়বে না।

আশা করি, ১০ বছর পরে আমাদের ব্যালেন্স শীট পরিষ্কার হবে। তিনি বলেন, আমরা একটি জায়গায় শক্তিশালী ভূমিকা রাখতে পারিনি, সেটা হচ্ছে খেলাপী ঋণ। খেলাপী ঋণ বাড়ার একটি কারণ হলো আমাদের সুদহার অনেক বেশি। আমাদের মতো এত উচ্চ ব্যাংক ঋণের সুদ পৃথিবীর আর কোন দেশে নেই।

খেলাপী কমাতে হলে পৃথিবীর অন্য দেশের মতো সুদহার কমাতে হবে। আমরা সবাই বসেছিলাম কীভাবে সুদহার কমানো যায় অথবা কমপিটিটিভ একটা এনভায়রনমেন্টে আনা যায়। সবাই আমরা একবাক্যে স্বীকার করেছি যে, সুদহার কমাতেই হবে।

সুদহার সিঙ্গেল ডিজিটে আনতে হবে। সুদহার সিঙ্গেল ডিজিটে আনলে আমাদের এনপিএল অনেক কমে যাবে। সুদহার কমলে আমাদের সঙ্গে বিদেশীরা ব্যবসা করে শান্তি পাবে, কোন প্রশ্ন করবে না। বিদেশীরা আমাদের এলসিগুলো গ্রহণ করবে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, আমি দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রথমদিন থেকে বলে এসেছি, খেলাপী ঋণের পরিমাণ বাড়বে না। খেলাপী ঋণ যদি বাড়ে তবে কোথা থেকে বাড়ে। এদেশের সব নাগরিকের কাছ থেকেই খেলাপী ঋণ বাড়ে। তাদের সবার কষ্টার্জিত টাকা। আমি তাদের পক্ষ নিয়েই বলেছিলাম, খেলাপী ঋণ বাড়বে না। আমরা সঠিকভাবে সঠিক কাজ করতে পারলে সব কিছুই সম্ভব।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ২ শতাংশ ডাউন পেমেন্টে ৯ শতাংশ সুদে ঋণ পুনর্তফসিলের সুবিধা দেয়া হয়েছিল কিন্তু হাইকোর্ট সেটাতে স্থগিতাদেশ দেয়ায় ব্যবসায়ীরা এ সুবিধা নিতে পারেননি। তাই এ কোয়ার্টারে খেলাপী বেড়েছে।

অর্থমন্ত্রী আর-ও বলেন, সুদহার সিঙ্গেল ডিজিট করলে অনেক উপকার হবে। কোর্টের যে অর্ডার ছিল সেটি কিন্তু এখন আর নেই। রায়টি আমরা যেভাবে প্রত্যাশা করেছিলাম সেভাবেই পেয়েছি। কোর্টের অর্ডার বাস্তবায়িত হলেই ঋণখেলাপী কমে যাবে। আমরা বিশ্বাস করি, ৩১ ডিসেম্বর আপনারা এর প্রতিফলন দেখতে পাবেন। তাই ডিসেম্বর শেষে খেলাপী ঋণ অবশ্যই কমবে। মোস্তফা কামাল বলেন, খেলাপী ঋণ কমাতে শুরু থেকেই আমরা শক্তিশালী ভূমিকা পালন করতে পারিনি। এ কারণেই সুদহার বৃদ্ধি পেয়েছে। সুদহার বৃদ্ধি পেলে একটি দেশের উৎপাদনশীল খাত, শিল্প খাত উন্নত হতে পারে না। এ মুহূর্তে যে কোনভাবে এ খাতকে এগিয়ে নিয়ে আসার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

ঋণের সুদ হার কমাতে ৭ সদস্যের কমিটি

ব্যাংক ঋণের সুদ হার কমাতে বাংলাদেশ ব্যাংকের সিনিয়র ডেপুটি গভর্নর এস এম মনিরুজ্জামানকে আহ্বায়ক করে সাত সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী সাত কর্ম দিবসের মধ্যে ব্যাংক ঋণের সুদ হার কমানোর প্রক্রিয়ার বিষয়ে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। রবিবার রাতে গবর্নর ফজলে কবির এ কমিটি গঠন করেন। তবে কমিটি চাইলে সদস্য সংখ্যা বাড়াতে পারবে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840