সংবাদ শিরোনাম:
বিডি ক্লিনের প্রধান সমন্বয়কের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এর সাবেক সহ সভাপতি মশিউর রহমান শরিফ নরসিংদী মডেল থানার নতুন ওসি বিপ্লব কুমার দত্ত চৌধুরী টাঙ্গাইল পৌর ভবন এখন করোনার হট স্পট সাহেদের ৫০ দিনের রিমান্ড আবেদন শাহিন স্কুলের কর্তৃপক্ষ তালা ঝুলিয়ে পালালেন দলীয় নেতা কর্মীরা মিথ্যার জাহাজ হিসেবে আখ্যায়িত করলেন কেন্দ্রীয় তাঁতী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদককে ক্লিন টাঙ্গাইলের উদ্যোগে চতুর্থবারের মত প্রতিবন্ধীদের মাঝে উপহারসামগ্রী বিতরণ মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে তাঁতী লীগের মন্তাজউদ্দীন ভূঁইয়ার কর্মসূচি ব্যারিষ্টার ছেলের পিতা টাঙ্গাইল পৌর প্যানেল মেয়র সাইফুজ্জামান সোহেল
শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী বুলবুল আবারো গ্রেফতার- এলাকাবাসীর দাবী রিমান্ড

শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী বুলবুল আবারো গ্রেফতার- এলাকাবাসীর দাবী রিমান্ড

ইয়াবা ব্যবসায়ী গ্রেফতার
ইয়াবা ব্যবসায়ী গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিনিধি: সোমবার (১৩ জুলাই) গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে টাঙ্গালের ঘাটাইল উপজেলার সানবান্ধা থেকে ৭০পিস ইয়াবাসহ বুলবুল (৩৫) নামে একজন মাদক কারবারিকে আটক করেছে টাঙ্গাইল ডিবি-উত্তরের দায়িত্বরত অফিসার ইনচার্জ’র একটি চৌকস দল।


গ্রেফতারকৃত বুলবুল ঘাটাইল উপজেলার লক্ষিন্দর ইউনিয়নের দুলালিয়া গ্রামের আনোয়ার এর ছেলে।
স্থানীয়রা জানান, বুলবুল আগে স্থানীয় গারোবাজারে টিভি মেরামত এর কাজ করতো, মোবাইল সার্ভিসিং এর অন্তরালে ইয়াবা সেবন এবং ইয়াবা ব্যবসা করতো, কিছুদিন পর সত্যি উন্মোচন হলে বেছেনেন নতুন প্রন্থা, সেজে যান সাংবাদিক। সাংবাদিকের কার্ড গলায় ঝুলিয়ে ইয়াবা ডেলিভারী করতেন। এখন আবার ব্যবসায় ব্যাপক লাভ জেনে স্বপরিবারে ব্যবসা করেন বলেও জানান তিনি।

বড় বড় ইয়াবার ডেলিভারী গুলো বুলবুলের বউ এবং বুলবুলের বাবা আনোয়ার হোসেন করেন বলে জানান।


নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক ব্যক্তি জানায়, বুলবুল দীর্ঘদিন যাবৎ স্থানীয় চেয়ারম্যান একাব্বর আলী এবং তার ছেলে হারুন অর রশিদ’র ছত্রছায়ায় থেকে মাদক ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। বুলবুলকে রিমান্ডে আনলেই সকল তথ্য বেড়িয়ে আসবে।


উল্লেখ্য, ২৬শে জুলাই ২০১৯ইং তারিখে টাঙ্গাইল জেলার সখিপুর উপজেলায় ১৫০ পিস ইয়াবাসহ ধরা পড়ে কয়েকমাস জেল হাজত খেটে জামিনে বের হয়েই আবারো বৃহৎ আকারে ডিলারী শুরু করে মাদক ব্যবসায়ী বুলবুল।


জেলা গোয়েন্দা শাখা ডিবি (উত্তর) সূত্রে জানা যায়, টাঙ্গাইল এর অফিসার ইনচার্জ মোঃ সাজ্জাদ হোসেন এর নের্তৃত্বে এসআই মোঃ রাইজ উদ্দিন সঙ্গীয় এএসআই আব্দুল মজিদ, কং ১২৭৫ মোঃ ফরিদুজ্জামান, কং ১২৬৫ মোঃ এমদাদুল হকদের মাদকদ্রব্য উদ্ধার ও বিশেষ অভিযান পরিচালনাকালে ঘাটাইল থানাধীন সানবান্ধা এলাকা হইতে ৭০ পিস ইয়াবা (যাহার আনুমানিক মূল্য = ২১,০০০/-টাকা) উদ্ধারসহ বুলবুল নামে ১ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে টাঙ্গাইল জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

স্থানীয় এলাকাবাসী দাবী করেন, বুলবুলকে রিমান্ডে এনে তার সকল মদতদাতা এবং তার সহযোগীদের আইনের আওতায় এনে এলাকা থেকে মাদক নিরমুল করা হোক এবং এলাকার স্কুল কলেজ পড়ুয়া ছাত্র/ছাত্রীসহ যুব সমাজকে ইয়াবার ভয়াল গ্রাস থেকে মুক্ত করা হোক।

দিন দিন টাঙ্গাইলের ঘাটাইলের পূর্বাঞ্চলে রীতিমত মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীদের তৎপড়তা বেড়ে যাচ্ছে। এমতাবস্থায় সরকার ও প্রশাসনের সু-দৃষ্টি না পরলে মাদকের থাবায় নিমজ্জিত হবে পূর্ব ঘাটাইল।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840