সংবাদ শিরোনাম:
টাঙ্গাইলে একইসাথে দুই করোনা যোদ্ধার জন্মদিন উদযাপন এমপি মমতা হেনা লাভলীর টাঙ্গাইলে বন্যার্তদের মাঝে ত্রান বিতরণ সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন, টাঙ্গাইল জেলা শাখার নতুন কমিটি এমপি হিরোর বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা লাগানোর অপচেষ্টার অভিযোগ টাঙ্গাইলে ছাত্রলীগ কর্তৃক বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী পালন মানিক শিকদারের ব্যবস্থাপনায় টাঙ্গাইলে জাতীয় শোক দিবস পালন টাঙ্গাইলের পৌর মেয়র জামিলুর রহমানে মিরনের ব্যবস্থাপনায় টাঙ্গাইলে শোক দিবস পালন প্রবাসে থেকেও থেমে নেই টাঙ্গাইলের মুজাহিদুল ইসলাম শিপন মেয়র লোকমানের আত্মস্বীকৃত খুনি এমপি সাহেবের প্রোগ্রামে সক্রিয় জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নিজেই প্রধান অতিথী, সভাপতিত্ব করবেন কে?
সাকিবকে শোকজ: বিসিবি প্রধান

সাকিবকে শোকজ: বিসিবি প্রধান

সাকিব আল হাসান
সাকিব আল হাসান

দেশের শীর্ষস্থানীয় টেলিকম কোম্পানি গ্রামিন ফোনের সঙ্গে নিয়মবহির্ভূত চুক্তি করেছে বাংলাদেশের ক্রিকেটের প্রান এবং বর্তমান টি-টুয়েন্টি ও টেষ্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। চলতি মাসের গত ২২ অক্টোবর শীর্ষ স্থানীয় টেলিকম কোম্পানি গ্রামীণফোনের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে যুক্ত হন এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব। বাংলাদেশ জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের সঙ্গে বিসিবির চুক্তি অনুযায়ী, একজন ক্রিকেটার যে কি না জাতীয় দলের ক্রিকেটের সাথে চুক্তিবদ্ধ সে কোন প্রকার টেলিকম কোম্পানির সঙ্গে কোন অবস্থাতেই চুক্তিবদ্ধ হতে পারেন না।

বিসিবি সভাপতি পাপন বলেন “আমার জানা মতে মন্ত্রণালয় থেকেও খেলোয়ারদের বলা আছে যে বিসিবি এবং মন্ত্রণালয়কে অবগত না করে কোন মোবাইল অপারেটর কোম্পানীর সঙ্গে চুক্তি করা যাবে না। বিসিবির সঙ্গে সম্পাদিত চুক্তিতে ও এই বিষয়ে স্পষ্ট উল্লেখ আছে। আমি বুঝতে পারি না এতো ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণের সাহোস ও পায় কই? ও বোর্ড কিংবা দেশের আইনের তোয়াক্কা করে না। ওর যা ইচ্ছা ও করে। ও নিজেকে ভাবেটা কি? সময়টা দেখেছেন? খেলা বন্ধ করে একদিকে আর অন্যদিকে খোলোয়ার হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হয়।”

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন আরও বলেন, এই চুক্তি কোনোভাবেই সে করতে পারে না। সকল বিষয় চুক্তিতে সুন্দর ভাবে বিস্তারিতভাবে লেখা আছে। লিখিতভাবে সব আছে। ওদের সতর্ক করে মৌখিকভাবেও বলে দেওয়া আছে। কত টাকা খরচ করে রবি আমাদের টাইটেল স্পন্সর হলো। ট্রাই করলো বাংলালিংক। হেরে গেলো বিড করতে এসে। রবি আমাদের স্পন্সর কিনে নিয়েছে। গ্রামীণ বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় কোম্পানি। তারা ক্রিকেটের পাশে নেই। তারা বিডই করল না। অথচ তারা তা না করে এক-দুই কোটি দিয়ে খেলোয়াড়দের কিনে নিয়ে ফেলল। এতে শেষ পর্যন্ত কী হলো? তিন বছরে বোর্ডের ৯০ কোটি টাকা লস হলো। খেলোয়াড় লাভবান হলো। কিন্তু বোর্ডের তো ১২টা বেজে গেল। এটি তো হতে পারে না। তাই লিখিতভাবে ওদের জানিয়ে রাখা আছে। ওরা যেন এসব না করে।

এই বিষয়ে বিসিবি লিগ্যাল একশনে যাচ্ছে। তারা কোন কিছুই নীয়ম ও চলমান আইনের বাইরে করবে না।

পাপন বলেন “ যে যত বড় খেলোয়ারই হোক, কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। কেউ আইনের বাইরে নয়। সবাইকে আইন মেনে চলতে হবে। আইন লঙ্ঘনের শাস্তি তো অবশ্যই পেতে হবে। কাউকে বড় বা ছোট করে দেখার সুযোগ নেই। কেউ নিজেকে খুব বেশি বড় ভাবলে ভাবতেই পারে। দেশের সম্মান ধুলোয় লুটাতে যা খুশি করতে পারে কিন্তু দেশের আইন কি তোকে ছেড়ে কথা বলবে?

শোকজ লেটার পাঠানো হচ্ছে গ্রামিন ফোন কেও। তাদেরকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। তারা বিডে অংশ নেয়নি। তারা আমাদের ক্রিকেট বোর্ডের পাশে নেই অথচ একজন খেলোয়ারকে অর্থের প্রলোভনে ফেলেছে। রবি কি দোষ করলো? রবি এখন বিসিবির বিরুদ্ধে মামলা করতেই পারে। আমরা কি জবাব দেবো? আমরা বলবো আমাদের খেলোয়ারের উপর আমাদের নিয়ন্ত্রন নেই। তারা যা খুশি করে। যা খুশি করতে পারে। রবি কেন এতো টাকা আমাদের উপর লগ্নি করেছে? তাদের ক্ষতি হোক আমরা তা চাই না। গ্রামীনফোন কে ক্ষতি পূরণ দিতে হবে। সাকিবকেও ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। যা হবে সব হবে আইনানুগ প্রকৃয়ায়।

সাকিবের আচরণটাই এমন যেন সে বোর্ডের কোন আইন কানুন না মানলেও কেউ কিছু বলতে পারবে না।

আফগানিস্তানের সাথে সিরিজের সময় আমি বিদেশে ছিলাম। কথা ছিল ব্যাটিং ওইকেটের পরে সাকিবের পরামর্শে এবং এক রোথা জিদের কারনে স্পিন ওইকেট করা হয়। যেখানে দেশের মাটিতে বাংলাদেশ অষ্ট্রেলিয়া/ ইন্ডিয়াকে হারায় সেখানে আফগানিস্তানের সাথে হারে। আফগানিস্তান স্পিন নির্ভর দল এটা গোটা পৃথিবীর সবাই জানে। বিষয়টা কেন এমন করা হলো? খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
নির্মান ও ডিজাইন: সুশান্ত কুমার মোবাইল: 01748962840